গুগলের স্মার্টফোন “গুগল পিক্সেল” অবশেষে উন্মোচিত

গুগল পিক্সেল ইভেন্টে উন্মোচিত হয়েছে গুগলের বহুল প্রতীক্ষিত স্মার্টফোন গুগল পিক্সেল!  গুগলের এই পিক্সেল ফোনটিতে যুক্ত করা হয়েছে চমৎকার সব সুবিধা। তবে যে সব সুবিধাগুলো হাইলাইট না করলেই নয় সেগুলো প্রিয় টেকের পাঠকদের জন্য নিচে সংক্ষেপে তুলে ধরার চেষ্টা করা হল।

গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট – গুগলের তৈরি এই স্মার্টফোনটিই বিশ্বের প্রথম ফোন যাতে ব্যবহার করা হয়েছে গুগলের একদম নতুন একটি ফিচার ‘গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট’! এই গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট স্মার্টফোনটিতে বিল্ট-ইন ফিচার হিসেবেই যুক্ত করা হয়েছে। এর মাধ্যমে আপনি আবহাওয়ার খবর থেকে শুরু করে কোন হোটেল বা রেস্টুরেন্টে সিট পর্যন্ত রিজার্ভ করতে পারবেন! আপনি চাইলে মুহূর্তেই এই অ্যাসিস্ট্যান্টটি আপনার পছন্দের গান আপনার পছন্দের মিডিয়া প্লেয়ারে প্লে-ব্যাক করে শোনাবে আপনাকে! ইন শর্ট, গুগলের এই অ্যাসিস্ট্যান্টটি আপনার স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা বদলে দিবে বলেই আমার বিশ্বাস! 

অসাধারণ ক্যামেরা – পিক্সেল ফোনে রয়েছে ১২.৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা ইউনিট যা চমৎকার ছবি তোলার পাশাপাশি ৪কে স্ট্যাবিলাইজড ভিডিও ধারণ করতেও সক্ষম। ডেক্সোমার্ক মোবাইলে ডিভাইসটির ক্যামেরা স্কোর করতে সক্ষম হয়েছে ৮৯ পয়েন্ট যা বর্তমানের সবগুলো স্মার্টফোনের থেকে বেশি! রেফারেন্সের জন্য বলতে হচ্ছে, অ্যাপলের আইফোন ৭ এই পরীক্ষায় ৮৬ পয়েন্ট স্কোর তৈরি করতে সক্ষম হয়েছিল। তাই আপনার যদি সবচাইতে চমৎকার ক্যামেরা ইউনিট বিশিষ্ট কোন স্মার্টফোন কেনার ইচ্ছে জন্মায় তাহলে গুগলের পিক্সেলই হবে সেই প্রতীক্ষিত স্মার্টফোন! 

আনলিমিটেড স্টোরেজ – এত সব চমৎকার ছবি এবং ৪কে ভিডিওগুলো সংরক্ষণ করবেন কোথায়? চিন্তার কিছু নেই! পিক্সেল ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য গুগলের ফটোসে আছে আন লিমিটেড ফুল রেজ্যুলেশন/কোয়ালিটির মিডিয়া কনটেন্ট সংরক্ষণের সুবিধাও! চমৎকার, নয় কী?

নতুন ভিডিও কলিং অ্যাপলিকেশন – ফোনটিতে আপনি পাবেন নতুন ভিডিও কলিং অ্যাপলিকেশন ‘গুগল ডুয়ো’ যা আপনার দৈনন্দিন কমিউনিকেশন রুটিনে আনবে চমৎকার কিছু পরিবর্তন! এই অ্যাপলিকেশনটিতে রয়েছে চমৎকার একটি ফিচার ‘নক নক’ যার মাধ্যমে আপনি কারও কল রিসিভ করার  আগেই সে কী করছে তা দেখতে পারবেন লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিং এর মাধ্যমে! 

ভার্চুয়াল রিয়ালিটি – গুগলের আরও একটি ভার্চুয়াল রিয়ালিটি পণ্য ডে-ড্রিম ভিআর আজ উন্মোচিত হয়েছে আজ যা নিয়ে আমরা একটি ডেডিকেটেড পোষ্ট আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চেষ্টা করব; আপাতত শুধু জেনে রাখুন যে এই ডিভাইসটি একটি ডে-ড্রিম ভিআর রেডি স্মার্টফোন!

কুইক চার্জ – স্মার্টফোনের চার্জ নিয়ে যাদের অনেক সমস্যা তাদের জন্য এই স্মার্টফোনটি হতে যাচ্ছে একটি আদর্শ ডিভাইস কেননা এই ডিভাইসটি মাত্র ১৫ মিনিটের চার্জে প্রায় ৭ ঘণ্টার মত সেবা প্রদান করতে সক্ষম!

আপডেট সুবিধাই এখন আরও আপডেট! – পূর্বের মত চোখের সামনে আপ-ডেটিং প্রসেস দেখতে হবেনা ব্যবহারকারীদের! পিক্সেল ফোন কোন নতুন আপডেট এলেই তা ব্যাকগ্রাউন্ডে ডাউনলোড এবং ইন্সটল হয়ে থাকবে যা কাজ করবে পরবর্তী রিস্টার্টের সময়!

নতুন অপারেটিং সিস্টেম – ডিভাইসটির অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে গুগলের সর্বশেষ অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নোগাট!

সুইচিং – স্মার্টফোন ঘন ঘন বদল করা আপনার অভ্যাসের তালিকায় একটি? আইওএসে শিফট হতে চাচ্ছেন? ঘটনা যাই হোক, এই সুইচিং সেবা ব্যবহার করে আপনি আপনার যে কোন তথ্য বা ডেটা স্থানান্তর করতে পারবেন অন্য ডিভাইসে! এর জন্য একটি সুইচিং ক্যাবলও প্রোভাইড করবে টেক জায়ান্ট গুগল! 

২৪/৭ লাইভ কাস্টোমার সাপোর্ট – ডিভাইসটির যে কোন সমস্যা সমাধানের জন্য আপনি পাচ্ছেন নতুন সুবিধা ‘২৪/৭ লাইভ কাস্টোমার সাপোর্ট’! সুবিধাটিতে স্ক্রিন শেয়ারিং এর অপশন যোগ করা হয়েছে যাতে করে কাস্টোমার সাপোর্টের এক্সিকিউটিভ আপনার ফোনের সমস্যাটি ভালো করে বুঝতে পারেন এবং দ্রুত সমাধান করে দিতে পারেন। 

এসব মেজর সুবিধাগুলো ছাড়াও আরও বেশ কিছু সুবিধা যোগ করা আছে যেগুলো আমরা ধীরে ধীরে আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চেষ্টা করব। চমৎকার এই ফোনটি ৩টি কালারে প্রযুক্তি বাজারে পাওয়া যাবে। কালার ৩ টি হচ্ছে কোয়াইট ব্ল্যাক, ভেরি সিলভার এবং লিমিটেড এডিশনের রিয়ালি ব্লু! 

স্মার্টফোনটির দুটি ভ্যারিয়েন্ট বাজারে থাকবে যাদের মধ্যে পার্থক্য শুধুমাত্র দশমিক পাঁচ ইঞ্চির স্ক্রিনের ব্যবধান। তাছাড়া স্মার্টফোন দুটির অন্যান্য স্পেসিফিকেশন হুবহু একই হবে। ফোন দুটির হার্ডওয়্যার স্পেসিফিকেশন নিচের ইলাস্ট্রেশনে যুক্ত করে দেয়া হল।  

চমৎকার এই গুগল পিক্সেল ফোনটি চাইলে আপনি আজই গুগলের প্লে স্টোর থেকে প্রি-অর্ডার করতে পারবেন। তবে এই সুবিধা বর্তমানে শুধুমাত্র যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, জার্মানি এবং যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীরা পাবেন। এ মাসের ১৩ তারিখ থেকে ফোনটি ইন্ডিয়াতেও প্রি-অর্ডারের জন্য পাওয়া যাবে। চমৎকার এই ডিভাইসটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ৬৪৯ ডলার, তবে আশা করছি হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যারের অসামান্য এই সমন্বয় বিশিষ্ট স্মার্টফোনের জন্য এটি খুব বেশি মূল্য নিশ্চয়ই নয়! 

তথ্য সূত্র – গুগল পিক্সেল ইভেন্ট 

Comments

comments

" প্রযুক্তির সর্বশেষ আপডেট পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন "

Related Post